ই-পেপার বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

শিক্ষকদের কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৫ মার্চ ২০২৩, ১৭:১৭

আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি করেছে এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারী জাতীয়করণ প্রত্যাশী মহাজোট।

অবস্থান কর্মসূচির ৩০তম দিন আজ। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার থেকে এমপিওভুক্ত শিক্ষা জাতীয়করণের দাবীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি করে আসছে এ সংগঠনটি। এ অবস্থান কর্মসূচির আহবায়ক ছিলেন অধ্যক্ষ মাইন উদ্দিন ও সদস্য সচিব জসিম উদ্দিন।

দীর্ঘ দিন ধরে যে সকল শিক্ষক-কর্মচারীগণ জাতীয় প্রেক্লাবের সামনে অবস্থান করে কর্মসূচিকে সাফল্যমণ্ডিত করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

পবিত্র রমজান মাস রোজা রেখে ও যারা উপস্থিত হয়েছেন তাদের ত্যাগ চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। লাগাতার কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে অনেক শিক্ষক কর্মচারি অসুস্থ হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে বা নিজ গৃহে চিকিৎসাধীন আছেন। অসুস্থ শিক্ষক-কর্মচারীর জন্য গত শুক্রবার বাদ জুম্মা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংযুক্ত মসজিদসমূহে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ অবস্থান কর্মসূচির পাশাপাশি ১২ থেকে ১৬ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে তিন ঘণ্টার কর্মবিরতিও পালন করা হয়।

কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া শিক্ষক কর্মচারীরা বলেন, স্বাধীনতার একান্ন বছর পরেও এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীরা সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। সরকারী ও বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনেক বৈষম্য রয়েছে। বৈষম্য গুলোর মধ্যে বাড়ি ভাড়া ,উৎসব ভাতা, চিকিৎসা ভাতা, পদোন্নতি না থাকা, হাউজ লোন না পাওয়া, বদলী প্রথাসহ চাকরি শেষে পেনশন প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। অবসর ও কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে প্রতি মাসে বেতনের ১০ ভাগ করে কেটে রাখলেও অবসরের পর যথাসময়ে টাকা প্রাপ্তির নিশ্চয়তা নেই। অনেকে টাকার অভাবে বিনা চিকিৎসায় মারা যান। বাড়িভাড়া নামমাত্র ১ হাজার টাকা ও চিকিৎসা ভাতা ৫০০ টাকা ও উৎসব ভাতা বেতনের ২৫ ভাগ পান। বিশ্বের কোনো দেশে শিক্ষা ব্যবস্থা এমন নাই বলে দাবী করেন তারা।

সারা দেশ থেকে আসা শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রিন্সিপাল দেলাওয়ার হোসেন আজীজী, আবুল কালাম আজাদ, জিল্লুর রহমান বাদল, মো. আরিফুর রহমান, রবিউল উসলাম, তোফায়েল সরকার, নয়ন মোর্শেদ, নজরুল ইসলাম, মানিক মিয়া, রিপন শিকদার, মেসবাহ উল হাসান প্রমুখ।

এমপিওভুক্ত শিক্ষা জাতীয়করণে প্রয়োজন শুধু সরকারের সদিচ্ছা ও সুষ্ঠু নীতিমালা। বক্তাগণ জাতীয়করণের সুস্পষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত রাজপথে অবস্থানের দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন এবং জাতীয়করণের সুস্পষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে ও পাশাপাশি আরও কোঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুমকি দেওয়া হয়।

এবি/ জিয়া

‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র পেলেন ১০৪ জন

‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ লেখা জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) পেয়েছেন ১০৪ জন মুক্তিযোদ্ধা। বৃহস্পতিবার (২৩ মে) আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে

এমপি আনারের হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যার রহস্য ও হত্যাকারীদের প্রায় সবকিছুই চিহ্নিত,

দেশের জন্য নদীর ভূমিকা মানুষের শিরা-উপশিরার মত

দেশের জন্য জন্য নদীর ভূমিকা মানুষের শরীরের শিরা-উপশিরার মত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম

নৌপথে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ প্রতিমন্ত্রীর

কিছু মানুষ আছে নৌপথে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার চেষ্টা করে। সে কারণে
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ডিসেম্বরে হবে এসএসসি পরীক্ষা

ন্যায়বিচার পাওয়া মানুষের সাংবিধানিক অধিকার: প্রধান বিচারপতি

‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র পেলেন ১০৪ জন

এমপি আনারের হত্যাকারীদের চিহ্নিত করা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশের জন্য নদীর ভূমিকা মানুষের শিরা-উপশিরার মত

দুই-তিন মাস ধরে এমপি আনারকে খুনের পরিকল্পনা হয়

নৌপথে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ প্রতিমন্ত্রীর

মেক্সিকোতে নির্বাচনী প্রচারণার মঞ্চ ভেঙে শিশুসহ নিহত ৯

সরকারের এই নীতি কর্তৃত্ববাদী শাসনের চরম দৃষ্টান্ত: রিজভী

আনার অপকর্মে জড়িত কি না তদন্তে বেরিয়ে আসবে: কাদের

নিজ শহর মাশহাদে দাফন করা হবে রাইসিকে

ফিলিস্তিনকে 'একতরফা স্বীকৃতি' দেওয়ায় বাইডেনের বিরোধিতা

অবশেষে ট্রাম্পকেই সমর্থন দিলেন নিকি হ্যালি

ভিয়েতনামের নতুন প্রেসিডেন্ট তো লাম

‘দণ্ড মাথায় নিয়ে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ আইনের দৃষ্টিতে সমীচীন নয়’

খোলামেলা ফটোশুটে প্রিয়াঙ্কার উত্তাপ

বাংলাদেশ ব্যাংক সমবায় সমিতিতে পরিণত হয়েছে: ড. সালেহ উদ্দিন

এমপি আনার হত্যাকাণ্ডে জড়িত কে এই শিলাস্তি রহমান

শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োগ নিয়ে সতর্ক জাতিসংঘ

ইরানের রাষ্ট্রদূতের কার্যালয়ে গিয়ে শোক প্রকাশ করলেন ফখরুল