স’ঙ্গম ক’রতে ম’রিয়া স্ত্রী’-নারাজ স্বামী, এরপর ঘটে গেল অঘ’টন

0

স’ঙ্গম ক’রতে ম’রিয়া স্ত্রী’-নারাজ স্বামী, এরপর ঘটে যায় এক অঘ’টন। স্বামী-স্ত্রী’র মধ্যে শা’রীরিক স’ম্পর্ক যে থাকবে, এতে আর অ’স্বাভাবিক কী’? কিন্তু এই স্বা’ভাবিক ঘটনা ঘ’টাতে গিয়েই বে’ধড়ক মা’র খেলেন এক মহিলা। স্বা’মীর স’ঙ্গে ঘ’নিষ্ঠ হতে

চেয়ে শ্ব’শুরবাড়ির লো’কেদের হাতে প্র’হৃত হলেন তিনি। স’ম্প্রতি এমন একটি ঘটনা ঘটেছে ভা’রতের গু’জরাটের আহমেদাবাদে। তিন বছর হল বি’য়ে হয়েছে বছর বাইশের ওই মহিলার। স্বামী তার থেকে তিন বছরের বড়। বিয়ের প্রথম’দিকে সব ঠিক ছিল। আর পাঁচটা দ’ম্পতির ম’তোই ছিল তাদের শা’রীরিক স’ম্পর্কও।

গত বছর গোড়ার দিকে তাদের স’ন্তানের জন্মও হয়। তার পর থেকেই স’মস্যার সূ’ত্রপাত। ওই মহিলার বক্তব্য, প্রথম স’ন্তানের জন্মের পর থেকেই তার স্বামী তার সঙ্গে অ’স্বাভাবিক আ’চরণ করতে শুরু করেন। কোনওভাবেই ঘ’নিষ্ঠ হতে চা’ইছিলেন না। অ’ভিযোগ, তিনি চেষ্টা করলে বির’ক্ত হচ্ছিলেন স্বামী।

কখনও কখনও তো ক্ষে’পে উ’ঠছিলেন। কিন্তু মহিলা এতে দ’মেননি। তার মনে হয়েছিল, নিজের স্বামীর স’ঙ্গেই তো তিনি ঘ’নিষ্ঠ হতে চাইছেন। অন্য কা’রওর সঙ্গে নয়। তাহলে সমস্যা কোথায়? তাই এবার প্রায় জো’র করেই বি’ছানায় ঘ’নিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ওই মহিলা। আর তখনই ঘটে অ’ঘটন।

অ’ভিযোগ, ঘ’নিষ্ঠ হওয়ার চে’ষ্টা করায় ওই ম’হিলার গা’য়ে হাত তো’লেন তার স্বামী। মহিলাকে বে’ধড়’ক মা’রধর করেন। তারপর স্পষ্ট জানিয়ে দেন, তিনি এখন ব্র’হ্মচারী। তাই কোনও মহিলার সঙ্গে স’ঙ্গম তার কাছে অ’প’রাধ। এরপর স্বামী-স্ত্রী’র মধ্যে ঝ’গড়া শুরু হয়।

একসময় ঝ’গড়া চ’রমে ও’ঠে। গৃহ’ত্যা’গ করেন ওই ব্যক্তি। স্বামীর গৃহ’ত্যা’গের সমস্ত দো’ষ এসে পড়ে স্ত্রী’য়ের উপর। শ্বশুরবাড়ির লোকেদের সমস্ত ঘ’টনা খুলে বলেন মহিলা। কিন্তু ফল হয় হি’তে বি’পরীত। তার উপরেই শুরু হয় অ’ত্যা’চার। স্বামীর পর শ্বশুরবাড়ির লোকেরাও তাকে মা’রধ’র করে।

তাদের দাবি, তাদের বাড়ির ছেলের উপর শা’রীরিক নি’র্যাতন চা’লাতেন স্ত্রী’। সেই কারণেই ছেলে গৃহ’ত্যা’গী হয়েছে। তবে এই ঘটনার পর চুপ করে থাকেননি ওই মহিলা। গোটা ঘ’টনার কথা পু’লিশকে জা’নিয়েছেন তিনি। থা*নায় গার্হ্যস্থ হিং’সার অ’ভিযো’গও দা’য়ের করেছেন। ঘটনার ত’দন্ত শুরু করেছে পু’লিশ। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

Leave A Reply

Your email address will not be published.