ই-পেপার বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ঝিনাইদহের আন্ডারওয়ার্ল্ড সাম্রাজ্যের সম্রাট আক্তারুজ্জামান শাহীন

আসাদুজ্জামান তপন
২৫ মে ২০২৪, ১১:০৩

ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ আর কোটচাঁদপুর এলাকা অনেক আগে থেকেই সন্ত্রাস আর চরমপন্থি সন্ত্রাসীদের জনপদ হিসেবে চিহ্নিত। এমপি আনোয়ারুল আজিম আনারের বাড়ি কালিগঞ্জ আর তার বাল্যবন্ধু ও আন্ডারওয়ার্ল্ড ব্যবসার অংশীদার আক্তারুজ্জামান শাহীনের বাড়ি পাশের কোটচাঁদপুর। একসময়ের আলোচিত হুন্ডি ব্যবসায়ী কাজল ওরফে হুন্ডি কাজলও এই শাহীনের প্রতিবেশী। হুন্ডি কাজলও ১৯৯৩ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত সাত বছর ওই এলাকায় আধিপত্য চালিয়ে হুন্ডি ব্যবসার নামে লাভ দেয়ার কথা বলে আড়াই হাজার কোটি টাকা লুটে নেয় সাধারণ মানুষের কাছ থেকে। স্বর্ণ চোরাচালান আর ভারত বাংলাদেশের মধ্যে হুন্ডি ব্যবসার একটি বড় সাম্রাজ্য হচ্ছে এই বৃহত্তর ঝিনাইদহ। আর এই অপরাধ সাম্রাজ্যের আধিপত্য এবং ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বিরোধের জের ধরেই আলোচিত এই হত্যাকাণ্ড। এসব তথ্য জানালেন গোয়েন্দা পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান সেলিমের ভাই আক্তারুজ্জামান শাহীন যুক্তরাষ্ট্রের পাসপোর্টধারী। তবে মাঝে মাঝেই আসতেন এলাকায়। বেহিসেবি অর্থের কারণে এলাকাতে শাহীনের ব্যাপক ক্ষমতা আর দাপট। ভাইকে মেয়র পদে বিজয়ী করার নেপথ্যে শাহীনের কালো টাকা ও অবৈধ ক্ষমতার প্রয়োগ ছিল। ভাই মেয়র হলেও শাহীনের ইশারায় চলত কোটচাঁদপুর পৌরসভা।

শাহীন উপজেলার এলাঙ্গী গ্রামে গড়ে তোলেন বিলাসবহুল বিশাল বাগানবাড়ি। যেখানে যাতায়াত ছিল শীর্ষ রাজনৈতিকনেতা ও প্রশাসনের অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের। এখানে বসেই শাহীন চালাতেন তার আন্ডারওয়ার্ল্ডের কার্যক্রম।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্তে বেরিয়ে এসেছে, শাহীন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হলেও দেশে যাতায়াত ছিল নিয়মিত। দুই যুগের বেশি সময় ধরে অবৈধ হুন্ডি ও স্বর্ণ চোরাচালানে আক্তারুজ্জামান শাহীন ও আনোয়ারুল আজিম আনারের মধ্যে সখ্য চলছে। সম্প্রতি তাদের মধ্যে অবৈধ স্বর্ণ চোরাচালানের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্ব হয়। কেউ কেউ বলছে ৫০ কোটি টাকার লেনদেন বা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে এই বিরোধ। আলোচিত ঘটনার আরেক অভিযুক্ত আমানউল্লাহ ওরফে শিমুল আবার এই শাহীনের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। সম্পর্কে তারা বেয়াই। শিমুল নিষিদ্ধঘোষিত চরমপন্থি দল পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টি বা জাসদ লালপতাকা দলের সাথেও সম্পৃক্ত। আবার শাহীনের বিয়াই হওয়ার সুবাদে এমপি আনারের সাথেও শিমুলের ঘনিষ্ঠতা ও ওঠাবসা ছিলো।

আন্ডারওয়ার্ল্ডের সঙ্গেও ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন শাহীন ও আমানুল্লাহ। কলকাতার ব্যারাকপুরের যে ফ্ল্যাটে আনারকে হত্যা করা হয়, সেটি শাহীনের নামেই ভাড়া নেয়া ছিল। মিশন সফল করার পর শাহীন যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন বলে জানা গেছে। দেশে ফিরে গ্রেপ্তার হয়েছেন তার সেই বেয়াই ও চরমপন্থি নেতা খুলনার ফুলতলা এলাকার আমানুল্লাহ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শাহীন কোটচাঁদপুরের এলাঙ্গী গ্রামের বাড়িতে ২৫ বিঘা জমির ওপর গড়েছেন বিশাল বাগানবাড়ি। এই বাড়িতে রয়েছে মিনি গলফ মাঠ, সুইমিংপুল, তিনটি শেফার্ড জাতের কুকুর, সাতটি গাভি, ১০-১২টি ছাগল। এই বাগান বাড়িতে রয়েছে প্রাচীন বাড়ির নকশায় ইট-পাথরে নির্মিত ডুপ্লেক্স ভবন। বাড়ির চারপাশ কাঁটাতার দিয়ে ঘেরা। সেখানে যাতায়াত ছিল উচ্চপদস্থ রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের। শাহীন তার অতিথিদের মনোরঞ্জনের জন্য রেখেছিলেন বিলাসবহুল ব্যবস্থা। রাতের বেলায় কাঁটাতারের চারপাশে আলো জ্বলে। ভেতরে কী হয় স্থানীয়রা কেউ জানতে পারে না।

রাতে বিভিন্ন ব্রান্ডের দামি দামি গাড়ি আসত। সেই গাড়িতে নারীদেরও দেখেছেন অনেকে। দেশে এলে শাহীন এই বাগানবাড়িতে বসেই নিয়ন্ত্রণ করতেন তার আন্ডারওয়ার্ল্ড।

এলাকাবাসী জানান, রাত ১০টার পর দামি দামি গাড়ি প্রবেশ করে এই বাংলোয়। অনেক গাড়িতে তারা নারী থাকতে দেখেছেন। ভেতরে হাঁটাহাঁটি করতেও দেখেছেন।

এমপি আনারের এক বাল্যবন্ধু গোলাম রসুল সাংবাদিক ও পুলিশকে জানান, আনার ও শাহীনের মধ্যে প্রায় ৩০ বছরের সম্পর্ক। তাকে নিয়ে এমপি আনারও একাধিকবার এই বাংলোতে গেছেন বলে তিনি জানান। এদিকে, শীর্ষ রাজনৈতিক নেতা ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে সখ্য থাকায় কেউ শাহীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার সাহস পায়নি। কোটচাঁদপুর থানায় তার নামে নেই কোনো মামলা।

কোটচাঁদপুর থানার ওসি সৈয়দ আল মামুন আমার বার্তাকে বলেন, আক্তারুজ্জামান শাহীন আমেরিকার পাসপোর্টধারী। তিনি এলাকায় খুবই কম আসতেন। তার বিরুদ্ধে কোটচাঁদপুর থানায় কোনো মামলা নেই।

স্থানীয়রা জানান, গত ১৫ বছরে অগাধ সম্পদের মালিক বনে যান শাহীন। কোটচাঁদপুর শহরে একাধিক মার্কেট, বাড়ি ও রিসোর্ট তৈরি করেছেন। তার আয়ের উৎস সম্পর্কে এলাকাবাসী অন্ধকারে।

তাদের ধারণা স্বর্ণ ও মাদক চোরাচালানের মাধ্যমে বিত্তবৈভবের মালিক হয়েছেন শাহীন। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও ক্ষমতার দাপট ছিল প্রচণ্ড। প্রচুর অবৈধ টাকা উড়িয়েছেন নিজের ক্ষমতার দাপট ধরে রাখতে। সর্বশেষ পৌরসভা নির্বাচনে আপন ভাইকে মেয়র পদে বসাতে ক্ষমতার দাপট ও কালো টাকার যথেচ্ছ ব্যবহার করেছেন। শহিদুজ্জামান সেলিম মেয়র পদে বসলেও নেপথ্যের ক্রীড়নক ছিলেন শাহীন ।

কোটচাঁদপুর এলাকায় গড়ে তুলেছেন নিজস্ব বাহিনী। এই বাহিনীর সদস্যরা কোটচাঁদপুরে হাটবাজার ও মার্কেট দখল, মোড়ে মোড়ে চাঁদাবাজির সঙ্গে জড়িত ছিল। শাহীন ক্ষমতার দাপটের কাছে তটস্থ ছিলেন এলাকাবাসী। তার অত্যাচারের প্রতিবাদ করার সাহস পাননি কেউ। হত্যা, চাঁদাবাজি, মাদক কারবার ও স্বর্ণ চোরাচালানের নেপথ্যের কারিগর হলেও সব সময় ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যান শাহীন ।

রাজনীতির ময়দানে ভাই সেলিমকে সামনে রেখেছেন। আর নেপথ্যে থেকে চালিয়ে গেছেন নিজস্ব সাম্রাজ্য। অপরাধ জগতের দাপটশালী এই ব্যক্তি সব সময় থেকে গেছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। আনোয়ারুল আজিম হত্যাকাণ্ডে শাহীনের সম্পৃক্ততার খবরের পর মুখ খুলতে শুরু করেছেন নির্যাতিত অনেকেই। তবে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়টি বিশ্বাস করতে পারছেন না শাহীনের আত্মীয়-স্বজনরা।

এ বিষয়ে শাহীনের ভাই কোটচাঁদপুর পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান সেলিম সাংবাদিকদের বলেন, পত্রপত্রিকা ও টিভি মিডিয়ায় দেখছি এমপি আনার হত্যাকাণ্ডে শাহীনের জড়িত বলে তথ্য উঠে এসেছে। এটা তদন্ত হোক। তদন্তে যদি তার সম্পৃক্ততার প্রমাণ মেলে তবে শাস্তি হবে। আমি এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না শাহীন এই কাজে জড়িত। তদন্তে সত্যতা মিললে অস্বীকার করার সুযোগ নেই।

কোটচাঁদপুরের এলাঙ্গীর গ্রামের বাড়িতে শাহীনের ২৫ বিঘা জমির ওপর বিশাল বাগানবাড়ি

আমার বার্তা/জেএইচ

স্বস্তি নেই মসলার বাজারে

বছরে দুটি ঈদ আসে। একটি সেমাই, চিনির চাপ বাড়াতে অন্যটি মসলার বাজার গরম করতে। সেই মসলার

থমকে গেছে বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন

গত ২৮ অক্টোবর বিএনপি জোট তাদের স্বার্থক ঢাকা অবরোধ করে একরকম ভেবেই নিয়েছিল সরকার পড়বে। 

ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না বিএনপি

ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না দেশের এক সময়কার একাধিকবার ক্ষমতায় থাকা দল বিএনপি। দলে ভর করেছে

এবার পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকায় আসবে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন

ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালু হচ্ছে কাল ১০ জুন থেকে। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো এ ট্রেন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

পল্টনের আগুন: ধোয়ায় অসুস্থ নারী ঢামেক বার্ন ইউনিটে 

দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবন সাজা হতে পারে ড. ইউনূসের

পল্টনের ফায়েনাজ টাওয়ারে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৫ ইউনিট

দুই পৌরসভায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের

বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটারে ভোগান্তি, তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

মিয়ানমারে দারিদ্র্য গভীর হয়েছে: বিশ্ব ব্যাংক

ফাজিলের ফল প্রকাশ, জানবেন যেভাবে

আমরা বাস করি ভূ-তলে, বিনিয়োগ করি পাতালে

যানজট এড়াতে ডিএমপির ২২ পরামর্শ

বেনজীরের আরও সম্পদ ও ফ্ল্যাট জব্দের নির্দেশ

তিস্তা মহাপরিকল্পনার বর্তমান পরিস্থিতি জানালেন প্রধানমন্ত্রী

জম্মু ও কাশ্মীরে ৭২ ঘণ্টায় তিন হামলায় নিহত ১২

নড়াইলে হত্যা মামলায় ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

অর্থনীতি অদক্ষতার ফাঁদে আটকে আছে: হোসেন জিল্লুর

শান্তিতে ভারত-পাকিস্তানকে পিছনে ফেলে এগিয়ে বাংলাদেশ

অনেক বড় জায়গা থেকে তদবির হচ্ছে: আনারকন্যা ডরিন

এমপি আনার হত্যা মামলা তদন্তে কোনো চাপ নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশের রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক কাঠামো ধ্বংস করেছে সরকার

সীমান্তে গুলি চালাতে পারে বিএসএফ: বিজিবির মাইকিং

না ফেরার দেশে চলে গেল দগ্ধ শিশু আয়ান