ই-পেপার বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৭ ফাল্গুন ১৪৩১

আ.লীগের এই নির্বাচনী মহড়া কোনো কাজে আসবে না: ব্যারিস্টার খোকন

অনলাইন ডেস্ক:
২৬ নভেম্বর ২০২৩, ১১:৫১
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, আওয়ামী লীগ ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো ভোটবিহীন নির্বাচনের ষড়যন্ত্রের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এবার তাদের এই নির্বাচনী মহড়া কোনো কাজে আসবে না।

রোববার (২৬ নভেম্বর) সুপ্রিম কোর্টের এনেক্স ভবনের সামনে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার খোকন বলেন, নির্বাচন এলেই আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্র করে। এটা কোনো রাজনীতি হলো, যারা নির্বাচন করবে তারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যায়। তাদের ষড়যন্ত্রটা ভোট কারচুপি করা, ভোট লুটপাট করা। আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া, মনোনয়ন দেওয়া এটা ভোট কারচুপির নতুন ষড়যন্ত্র। ২০১৪ ও ২০১৮ সালে যা করেছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে। এবারও তারা এক ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আমি বলব, এবার কিন্তু তারা ভুল করছে। রাজনৈতিক কৌশলে আওয়ামী লীগ ভুল করছে। এবার আর আগের মতো পরিবেশ নেই। সমগ্র দেশবাসী একটা দাবিতে আন্দোলন করছে সেটা হলো নাগরিকদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা। ভোটাধিকার নিশ্চিত করা ছাড়া আওয়ামী লীগের এই নির্বাচনী মহড়া কোনো কাজে আসবে না। যে পর্যন্ত আন্দোলন সফল না হবে, যে পর্যন্ত তত্ত্বাবধায়ক সরকার না আসে সে পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

শুধু বিএনপি নয়, সমমনা অনেক রাজনৈতিক দল আছে, পাশাপাশি জনসাধারণ তারাও কিন্তু সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। সরকারকে বলব এখনও সময় আছে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হোক। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেন। নাহলে রাজনীতি যত জটিল হবে তত দেশেরও ক্ষতি হবে। আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব বিপন্নের দিকে যাবে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন আইন মন্ত্রণালয় নিম্ন আদালত নিয়ন্ত্রণ করছে এটা তো খারাপের দিকে যাচ্ছে। কারণ দীর্ঘদিন থেকে তো মামলাগুলো পড়ে ছিল। নির্বাচনের তফসিল আসার সাথে সাথে যে সাজা দিচ্ছে। বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী বা সাবেক এমপিকে সাজা দিচ্ছে। সরকার মনে করছে সাজা দিলেই মনে হয় আন্দোলন থেমে যাবে। আর কত সাজা দেবেন। কোটি কোটি মানুষকে তো সাজা দিতে পারবেন না। সাজা দিলে কোথায় রাখবে। এখন তো কোনো জেলখানায় জায়গা নেই। ২৮ অক্টোবরের আগে ছিল ৮৩ হাজার বন্দি। এখন ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি হয়ে গেছে। কত জেলে দেবে। এভাবে চলতে থাকলে সামনের দিনে স্কুল-কলেজকে গেজেট করে কারাগার ঘোষণা দিতে হবে। কারাগার করে গ্রেপ্তার করছে সরকার। স্কুল-কলেজকে কারাগার করে রাখতে হবে। সবকিছুই নির্বাচনী ষড়যন্ত্রের একটি অংশ।

আমার বার্তা/এমই

ঢাকার দুই জজ আদালতে নতুন বিচারক

ঢাকা মহানগর ও জেলা দায়রা জজ আদালতে নতুন দুই বিচারক নিয়োগ পেয়েছেন। মহানগর দায়রা জজ

আরও তিন মামলায় জামিন পেলেন দুদু

রাজধানীর পল্টন থানার তিন নাশকতার মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি)

ফের পেছাল সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলার রায়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী সগিরা মোর্শেদ হত্যা মামলার রায় দ্বিতীয়বারের মতো পিছিয়েছে। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার

মির্জা আব্বাসের জামিন, কারামুক্তিতে বাধা নেই

ঢাকা রেওলয়ে থানার মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। এ
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

একটা বিজাতীয় ভাষা আমাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়

শক্তিশালী পাসপোর্ট সূচকে পেছাল বাংলাদেশ

বিএনপি নেতা আলাল কারামুক্ত

খতনা করতে এসে শিশুর মৃত্যু: জেএস ডায়াগনস্টিক সিলগালা

বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধিদের আইনের মধ্যে থাকার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

রাজকীয় শাসন চালু করেছে দেশীয় হানাদার বাহিনী: রিজভী

অবশেষে পাকিস্তানে সরকার গঠনে অনিশ্চয়তা কাটলো

ফের সুন্নতে খৎনা করাতে গিয়ে আইডিয়াল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের ঢল

রক্তঝরা অমর একুশে আজ

বিশ্বে ৩৫ কোটির বেশি বাংলা ভাষাভাষী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িক বীজবৃক্ষ তুলে ফেলব

২১ ফেব্রুয়ারি ঘটে যাওয়া নানান ঘটনা

জাবি ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি-সম্পাদক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার

ভাষাশহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ঢাকার দুই জজ আদালতে নতুন বিচারক

একুশ বরণে প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার

অর্থপাচারের ৮৫ শতাংশই আমদানি-রপ্তানির আড়ালে

একুশের চেতনা অনুপ্রেরণার অবিরাম উৎস

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার পুনরুদ্ধারের আন্দোলন চলবে