ই-পেপার রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
এফবিসিসিআই

ভূরাজনীতির নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে

অনলাইন ডেস্ক:
০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৯:৪১

বর্তমান বিশ্ব ভূরাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকটের ফলে বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনৈতিক কার্যক্রমে ইতিমধ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বলে মনে করেন শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মাহবুবুল আলম। তিনি বলেছেন, এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন দেশের ব্যবসায়ীরা।

শনিবার (৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কনভেনশন হলে অনুষ্ঠিত ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির বার্ষিক সাধারণ সভায় বক্তৃতা দেওয়ার সময় ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন মাহবুবুল আলম। এফবিসিসিআইয়ে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মাহবুবুল আলম বলেন, ব্যবসায়ীরা দেশের অর্থনীতির প্রাণ। বাংলাদেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে ব্যবসায়ীরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে, দেশকে সমৃদ্ধ করতে সকল ভেদাভেদ ভুলে ব্যবসায়ীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ক্ষুদ্র, মাঝারি, বৃহৎ শিল্পোদ্যোক্তা থেকে শুরু করে দেশের সকল পর্যায়ের ব্যবসায়ীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। রাজনৈতিক সহিংসতা, ভেদাভেদ ভুলে দেশের অর্থনীতিকে সামনের পথে এগিয়ে নিতে ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে সামনের পথে এগিয়ে নেওয়ার কোনো বিকল্প নেই।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, দেশের ব্যবসায়ীরা সুষ্ঠুভাবে নিজ নিজ ব্যবসা পরিচালনা করতে চান। দেশের ব্যবসা, বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ সম্প্রসারণের জন্য ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ খুবই জরুরি। দেশের ব্যবসা, বাণিজ্য এবং অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে রাজনৈতিক দলগুলোকে জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে অসহিষ্ণু কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাই।

বর্তমান বিশ্ব ভূ-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকটের ফলে বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনৈতিক কার্যক্রমে নেতিবাচক প্রভাব ইতোমধ্যে পড়তে শুরু করেছে উল্লেখ করে মাহবুবুল আলম বলেন, এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে আমাদের ব্যবসায়ীরা। এছাড়া ২০২৬ সালে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাণিজ্য সংক্রান্ত পরিস্থিতি ও নীতিমালা ক্রমশ আধুনিকায়ন করতে হচ্ছে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন ইস্যু যেমন- ক্রস বর্ডার ট্রেড ও কানেক্টিভটি, বিনিয়োগ, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে বেসরকারি খাতের সুপারিশ প্রণয়ন, শুল্ক ও কর ব্যবস্থা, অবকাঠামো, সাপ্লাই চেইন ও লজিস্টিক সাপোর্ট, এনার্জি,জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব, চতুর্থ শিল্প-বিপ্লব, টেকনিক্যাল এবং ভোকেশনাল ও কারিগরি শিক্ষা ইত্যাদি বিষয়ে সুনির্দিষ্টভাবে বেসরকারি খাতের অবস্থান মতামত এবং সুপারিশমালা নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে তুলে ধরা জরুরি।

মাহবুবুল আলম আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে একাত্ম হয়ে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণমূলক প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতকরণে একটি স্মার্ট এফবিসিসিআই গড়ার ম্যানিফেস্টো নিয়ে বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ দায়িত্ব গ্রহণ করে। এরই ধারাবাহিকতায় এফবিসিসিআই নিয়মিত কার্যক্রম সম্পর্কে সাধারণ পরিষদের সদস্যদের অবহিত করার জন্য প্রতি মাসে ই-বুলেটিন প্রকাশ করা হচ্ছে। একটি গতিশীল, ব্যবহার-বান্ধব এবং ইন্টারেক্টিভ এফবিসিসিআই গঠনে ডিজিটাল ওয়েবসাইট প্রবর্তন করা হয়েছে। এছাড়া ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে এফবিসিসিআই এর কার্যক্রমকে আধুনিক ও গতিশীল করার জন্য স্মার্ট অফিস তৈরির লক্ষ্যে গুলশানে এফবিসিসিআইয়ের অফিস সম্প্রসারিত করা হয়েছে।

দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে ব্যবসায়ীদের কল্যাণে বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন এফবিসিসিআই সভাপতি। এ সময় পুরান ঢাকায় নতুন শাখা অফিস খোলা ও উত্তরায় একটি ভোকেশনাল সেন্টার স্থাপনের পরিকল্পনা, গুলশানে এফবিসিসিআই এর এক্সটেন্ডেড অফিস চালু, এফবিসিসিআই ইনোভেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের উদ্বোধন, পুরুষ জামানতকারী ছাড়াই নারী উদ্যোক্তাদের জন্য সর্বোচ্চ ৫০ লাখ টাকা কিস্তি প্রাপ্তি, আয়কর জমা দেওয়ার সময়সীমা ২ মাস বাড়ানোসহ পলিসি অ্যাডভোকেসির মাধ্যমে দেশের বেসরকারি খাতের সুরক্ষায় বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের ভূমিকার কথা সাধারণ পরিষদ সদস্যদের সামনে তুলে ধরেন মাহবুবুল আলম।

গত বার্ষিক সাধারণ সভার কার্য বিবরণী, এফবিসিসিআইয়ের বার্ষিক প্রতিবেদন ২০২২-২৩, এফবিসিসিআইয়ের আয়-ব্যয়ের নিরীক্ষা প্রতিবেদন এবং নতুন একটি প্রতিষ্ঠানকে নিরীক্ষক দেওয়ার বিষয়ে সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন দেওয়া হয়।

সভায় অন্যদের মধ্যে এফবিসিসিআই এর সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী, সহ-সভাপতি খায়রুল হুদা চপল, মোহাম্মদ আনোয়ার সাদাত সরকার, ড. যশোদা জীবন দেবনাথ, শমী কায়সার, রাশেদুল হোসেন চৌধুরী (রনি), মো. মুনির হোসেন, পরিচালক এবং এফবিসিসিআই এর সাধারণ পরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আমার বার্তা/এমই

শ‌নিবার ও রোববার যেসব এলাকায় ব‌্যাংক খোলা

ঈদের আগে সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির মধ্যেও তৈরি পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিক, কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের

ঈদে অস্থির মসলার বাজার, দাম বেড়েছে বহু গুণ

দুয়ারে কড়া নারছে ঈদুল আজহা। কোরবানির ঈদ মানেই ত্যাগের সঙ্গে তৃপ্তি করে খাওয়াদাওয়াও। আর সব

ঈদের ছুটিতে কাঁচা মরিচের ডাবল সেঞ্চুরি, শসার সেঞ্চুরি

মাত্র দু'দিন পরেই কুরবানির ঈদ। এরই মধ্যে রাজধানী ছাড়তে শুরু করেছে নগরবাসী। তাই বাজারে ক্রেতাদের

ফাঁকা বাজারেও চোখ রাঙাচ্ছে সব ধরনের সবজি

আর মাত্র দুদিন পরে ঈদ। গতকাল (বৃহস্পতিবার) শেষ কর্মদিবস শেষে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঢাকা ছেড়েছেন অনেকে।
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

১৬ জুন ঘটে যাওয়া নানান ঘটনা

ঈদ উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদফতরের ১৪ নির্দেশনা

মোহাম্মদপুর থানা ছাত্রলীগের সভাপতির অবৈধ ছাগলের হাট

ঢামেকে চিকিৎসাধীন কেন্দ্রীয় কারাগারের কয়েদির মৃত্যু

প্রধানমন্ত্রীর আয় আয় ডাকে ছুটে এলো খরগোশ দল

সেন্টমার্টিন নিয়ে সরকারের নীরবতা দাসসুলভ আচরণ: ফখরুল

পঙ্গু ও কিডনি হাসপাতালের অব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অসন্তোষ

নাফ নদী থেকে সরে গেছে মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ

আনারকন্যার অভিযোগ অস্বীকার ডিএমপি কমিশনারের

হজের খুতবায় মুসলিম উম্মাহ ও ফিলিস্তিনিদের জন্য দোয়া

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে কঠোর নজরদারি রয়েছে: সেনাপ্রধান

রাঙামাটিতে বজ্রপাতে নারীসহ ৪ জনের মৃত্যু

তেজগাঁওয়ে ডেসকোর সুইজিং স্টেশনে বিস্ফোরণে দগ্ধ ২

অশুভশক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে প্রস্তুত থাকতে হবে: ফখরুল

পদ্মা সেতুতে একদিনে টোল আদায়ের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড

গাজীপুরে বকেয়া বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

কুরিয়ার সার্ভিসে পাঠানো ৭২৫০ পিস ইয়াবা জব্দ করেছে ডিএনসি

মৎস্যমন্ত্রীর বাসার লিফটে অধিদপ্তরের পরিচালককে মারধর আরেক কর্মকর্তার

ছাত্রদলের ২৬০ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

ভালুকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২