ক্যা’ন্সারের ভ’য় দেখিয়ে নারীদের স্ত’ন ও গো’পনা’ঙ্গ পরীক্ষা, পরে ধ’র্ষণ ক’রেন ডাক্তার!

0

ভ’য় দেখিয়ে স্ত’ন ও গো’পনা’ঙ্গ পরীক্ষা, পরে ধ’র্ষণ ক’রেন ডাক্তার-শ্লী’লতাহা’নি ও ধ’র্ষণের দায়ে দো’ষী সাব্যস্ত হলেন লন্ডনের ভা’রতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক মনীশ শাহ।ক্যা’ন্সারের ভ’য় দে’খিয়ে তিনি স্ত’ন ও গো’পনা’ঙ্গ পরীক্ষা করতেন।

তার পরেই শুরু হত শ্লী’লতাহা’নি ও ধ’র্ষণ। ল’ন্ডনের ওল্ড বেইলি কোর্টে মা’মলার শু’নানিতে জানা গিয়েছে, চিকিৎসক মনীশ শাহ তার চেম্বারে আসার পর রোগীদের প্রথমে হলিউড অ’ভিনেত্রী অ্যাঞ্জে’লিনা জোলির গল্প শোনাতেন। বলতেন, কী’’ভাবে স্ত’ন

প্র’তিস্থাপন করে ক্যা’ন্সারের বি’পদ কা’টিয়ে ফে’র সু’ন্দরী হয়ে উঠতে পে’রেছেন হলিউড অ’ভিনেত্রী। তার পর জানতে চা’ইতেন, ক্যা’ন্সারের বি’পদ দূ’র ক’রতে তা’রাও স্ত’ন প’রীক্ষা ক’রাতে চান কি না। রো’গীরা রা’জি হলে স্ত’ন ও গো’পনা’ঙ্গ প’রীক্ষার নামে

শুরু হয়ে যে’ত শ্লী’লতাহা’নি ও ধ’র্ষণ।ছয় জন নারী এই অ’ভিযোগ জানান ওল্ড বেইলি কোর্টে। তার বি’রুদ্ধে ওঠা অ’ভিযো’গের প্রে’ক্ষিতে পু’লিশি ত’দন্ত শুরু হওয়ার পরেই ২০১৩ সাল থেকে চেম্বারে বসে তার রোগী দেখা ব’ন্ধ করে দেওয়া হয়। আ’দালত মনীশের

শা’স্তি ঘো’ষণা করবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি। প্রসিকিউটর কেট বেক্স আ’দালতে বলেছেন, ‘‘উনি এই ভাবে ক্যা’ন্সারের ভ’য় দে’খিয়ে স্ত’ন ও গো’পনা’ঙ্গ প’রীক্ষা করতেন। সেই প্রয়োজন না থাকা সত্ত্বেও।প্রসিকিউটর বেক্স আ’দালতে জানিয়েছেন, ২০০৯ সালে মে থেকে ২০১৩ এর জুন

পর্যন্ত পূর্ব লন্ডনের মওনে মেডিকেল সেন্টারে তার চেম্বারে এই ভাবে ছয় জন নারী শ্লী’লতাহা’নি ও ধ’র্ষণ করেছেন ৫০ বছর বয়সী চিকিৎসক মনীশ শাহ। নি’র্যাতি’তাদের মধ্যে রয়েছেন ১১ বছর বয়সী একটি মেয়েও। আ’দালতে আরও জানানো হয়, শুধু এই ছ’টি অ’ভিযোগই নয়,

মনীশের বি’রুদ্ধে চিকিৎসার নামে একইভাবে শ্লী’লতাহা’নি ও ধ’র্ষণের আরও ১৭টি অ’ভিযোগ রয়েছে বিভিন্ন আ’দালতে।news24bd

Leave A Reply

Your email address will not be published.