ই-পেপার রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১

স্বস্তি নেই মসলার বাজারে

ঈদ আগমনে নির্মম রসিকতায় মেতেছে বিক্রেতারা
রতন বালো
১২ জুন ২০২৪, ১২:৪৩

বছরে দুটি ঈদ আসে। একটি সেমাই, চিনির চাপ বাড়াতে অন্যটি মসলার বাজার গরম করতে।

সেই মসলার বাজারে এখন কোনো স্বস্তি নেই। যে হারে দাম বাড়ানো হয়েছে সেই হারে দাম কমেনি এমন অভিযোগ ক্রেতাদের। তাদের ভাষ্য দাম কমানোর নামে ক্রেতাদের সঙ্গে নির্মম রসিকতায় মেতেছে বিক্রেতারা। তারা মানুষের কষ্টকে বাড়িয়ে দিয়ে বলছে মসলার দাম কমেছে!

দরজায় কড়া নাড়ছে কোরবানির ঈদ। এই ঈদে মাংস খাওয়ার হিড়িক পড়বে। তাই মসলার বাজারে ক্রেতাদের ভিড়। তবে ক্রেতারা মোটেই সন্তুষ্ট নয় বাজার দর নিয়ে। তাদের অভিযোগ বিক্রেতারা সিন্ডিকেট করে মসলার দাম অনেকটাই নিয়ন্ত্রণের বাইরে নিয়ে গেছে।

কচুক্ষেত থেকে মসলা কিনতে আসা রাকিব হাসান বলেন, বাজারে মসলার দাম কমেছে এই বিশ^াসে পুরানো ঢাকার চকবাজারে এসেছেন মসলা কিনতে। কিন্তু এসেই তিনি হতাশ। জানালেন তার কষ্টের কথা।

রাকিব বলেন, প্রতিবছরই মসলা কিনতে হয়। বিশেষ করে কোরবানি আসলেই মসলার চাহিদা বাড়ে। কোরবানির মাংস রান্না করতে মসলার প্রয়োজন। শুনেছিলাম এবার নাকি চকবাজারে মসলার দাম কম। কিন্তু এসে হতাশ হলাম। বাজারে এসে দেখি কিছুই কম নাই। দাম আগের মতোই চড়া। এসবের মূলেই রয়েছে সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য।

এদিকে এসে গেছে খুশির ঈদ। আর মাত্র ৬ দিন পরেই কোরবানি। শুরু হয়ে গেছে তোড়জোড়। কোরবানির ঈদে শপিংমল থেকে মশলার বাজারে বেশি ভিড় পড়ে যায়। প্রতিবছরের মতো এবারও চিরচেনা সেই দৃশ্য চোখে পড়ছে। কিন্তু বাজারের অবস্থা দেখে ক্রেতাদের ঈদের খুশি অনেকটা উধাও। তারা মলিন মুখে বিক্রেতাদের সঙ্গে দরদাম করছেন। তাদের তিক্ত বক্তব্য, সিন্ডিকেটসহ নানা কারণে মসলার দাম এখনো নাগালের বাইরে।

যদিও ক্রেতাদের এই অভিযোগ মানতে নারাজ বিক্রেতারা। তারা আগের মতো রেকর্ড বাজাচ্ছেন। বলছেন, প্রতিটি মসলার দাম কমেছে। এই কমার কারণে ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতিদিনই বেচাকেনা বাড়ছে। আগামী দুই-তিনদিনে এই বিক্রি কয়েকগুণ বাড়বে এমনটিই তাদের প্রত্যাশা।

এখন দেখে আসা যাক কেমন মসলার বাজার: গতকাল মঙ্গলবার পুরান ঢাকার চকবাজারের মৌলভীবাজারের মসলার পট্টিসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে যা জানা গেছে তাতে ক্রেতাদের জন্য কোনো সুসংবাদ নেই। যদিও ঘটা করে মসলার দাম কমানোর কথা বলছেন বিক্রেতারা। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। ২৬০ টাকা কেজির ধনিয়া দাম কমে ১৮০ টাকা, ১৪০ টাকা কেজির সরিষা দাম কমে ১০০ টাকা, ৮০০ টাকা কেজি দরের কিসমিস কেজি প্রতি প্রায় ২০০ টাকা কমে ৬০০ থেকে ৬২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ২ হাজার ৬০০ টাকা কেজির গোল্ডেন এলাচ কেজি প্রতি ২ হাজার ৮০০ টাকা, ২ হাজার ৬০০ টাকা কেজি দরের বড় এলাচ কেজি প্রতি ২০০ টাকা বেড়ে ২ হাজার ৮০০ টাকা, গোলমরিচ ১ হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হলেও এখন দাম কমে ৮৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে ভারতীয় জিরা প্রতি কেজি ৮০০ টাকায় বিক্রি হলেও কেজি প্রতি ১০০ টাকা কমে এখন ৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কেজি প্রতি ১ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে শাহী জিরা। আর ৪০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হওয়া মিষ্টি জিরার দাম কমে এখন প্রতি কেজি ২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে পাঁচফোড়ন ২২০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও ঈদকে সামনে রেখে কেজি প্রতি ২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ৪০০ টাকার কেজির রাঁধুনি কেজি প্রতি ২০০ টাকা বেড়ে এখন ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মেথি ১৬০ টাকা কেজি, চিনাবাদাম ১৬০ টাকা কেজি, কাজু বাদাম ১ হাজার ৩০০ টাকা কেজি, পেস্তা বাদাম ৩ হাজার ৬০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও এখন দাম কমে ২ হাজার ৮০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। ত্রিফলা ১৬০ টাকা কেজি, জয়ফল ১ হাজার ৩০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও দাম কমে এখন ১ হাজার টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে। তেজপাতা ১২০ টাকা কেজি, সাদা গোলমরিচ ১ হাজার ৪০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও দাম কমে এখন ১ হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে ২ হাজার টাকা কেজিতে বিক্রি হওয়া লবঙ্গ কেজি প্রতি ৫০০ টাকা কমে এখন ১ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৪ হাজার টাকা কেজিতে বিক্রি হওয়া জয়ত্রি কেজি প্রতি ৮০০ টাকা কমে ৩ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ১ হাজার ৮০০ টাকার পোস্তদানা কেজি প্রতি ২০০ টাকা বেড়ে ২ হাজার টাকা, ৬০০ টাকা কেজির আলুবোখারা দাম কমে ৪৭০ টাকা, ৬০০ টাকা কেজির দারুচিনির দাম কমে ৫০০ টাকা, ২৮০ টাকা কেজির খোলা হলুদের গুঁড়া ৩৬০ টাকা, ৪০০ টাকা কেজি খোলা মরিচের গুঁড়া ৫০০ টাকা এবং ৩ হাজার ৬০০ টাকা কেজির কালো এলাচ দাম কমে ২৮৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মৌলভীবাজারের ঢাকা স্টোরের একজন মসলা বিক্রেতা মো. আশরাফ দাবি করেন, ঈদুল আজহায় সবাই যেহেতু কোরবানি করে, সেহেতু মসলার চাহিদা বেশি থাকে। তবে চাহিদা থাকলেও মসলার দাম বাড়েনি। দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গসহ সব মসলার দামই এখন কমেছে।

তিনি বলেন, এরই মধ্যে ক্রেতারা মসলা কেনা শুরু করেছেন। তবে ঈদের দুইদিন থেকে তিনদিন আগে প্রচুর মসলা বিক্রি হবে।

আলী আজম নামের একজন মসলা বিক্রেতা বলেন, মসলার দাম কমলেও ক্রেতাদের সন্তুষ্টি দেখি না। সব মসলায় নাকি দাম। আমাদের হাতে তো দাম কমানোর উপায় নেই।

মসলা কিনতে আসা ফজলে বারী জানান, ঈদে গরু কোরবানি দেব। তাই মসলার প্রয়োজন। কিন্তু মসলার বাজারে দেখি সবকিছুরই দাম। আগে যে হারে দাম বাড়ানো হয়েছে। বর্তমানে তার অর্ধেকও দাম কমেনি। এভাবেই ক্রেতাদের প্রতারিত করে চলেছে দেশের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য মসলার বাজার মৌলভীবাজার মসলা পট্টি।

পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে পণ্যের দাম বাড়ার কথা না থাকলেও, অযৌক্তিকভাবে বাজারে কারসাজি করে কিছু পণ্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) এ এইচ এম সফিকুজ্জামান।

সম্প্রতি রাজধানীর পুরান ঢাকায় ঈদুল আজহা সামনে রেখে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে ঢাকাস্থ মৌলভীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

ভোক্তার ডিজি বলেন, অযৌক্তিকভাবে কিছু পণ্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে। বিগত রোজায় দেখা গেছে, কিছু পণ্যের চাহিদাকে পুঁজি করে বাজার অস্থির করে রাখা হয়েছিল। তেমনিভাবে কোরবানি এলেই গরম মসলার দাম বাড়ে। গত এক মাসে গরম মসলার দাম বেড়েছে ৭০ শতাংশ। এভাবে দাম বাড়ার কথা না। তাহলে নিশ্চয়ই বাজারে কোন কারসাজি হচ্ছে! মানুষের এ নিয়ে অনেক অভিযোগ আছে।

তিনি আরও বলেন, বাজারে কিছু পণ্যের দ্রব্যমূল্য বাড়ার কিছু যৌক্তিক কারণ আছে। ডলারের দাম বৃদ্ধি, ডলার সংকট, জ্বালানির দাম বৃদ্ধি ও এলসির সমস্যার মতো কিছু কারণ আছে। এসব সমস্যা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। তা ছাড়া সব ব্যবসায়ী খারাপ না। কতিপয় ব্যবসায়ীর জন্য সবার বদনাম হয়। ব্যবসায়ীদের বাদ দিয়ে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আমার বার্তা/জেএইচ

কঠোর অবস্থানে সরকার

* কোটা আন্দোলন নিয়ে মন্ত্রীদের অবস্থান স্পষ্ট * মামলা প্রত্যাহারে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম * আন্দোলন অন্যদিকে ধাবিত

শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা পেলেন ১৫ গুণীজন

লোকসঙ্গীত শিল্পী মো. আবুল বাশার আব্বাসী। বয়স ৫০ পেরিয়ে ৫১ ছুঁই ছুঁই। আট বছর বয়স

জনজীবনে দুর্ভোগের থাবা

চলছে আষাঢ় মাসের শেষ সপ্তাহ। আকাশ ভেঙে রিমঝিম বা ঝুমবৃষ্টি নামবে এমনটাই স্বাভাবিক। গত কদিন

বাকিরকেও হার মানিয়েছেন সিবিএ নেতা সারোয়ার!

বিআইডব্লিউটিএ'র (সরকারি দল) এর সিবিএ নেতা সারোয়ার হোসাইন বিএনপি পন্থী সোনালী ব্যাংকের সিবিএ নেতা বাকির
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

কোটা সংস্কারে রাষ্ট্রপতি বরাবর পবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের স্মারকলিপি

তীব্র গরম উপেক্ষা করে এক ঘন্টা পদযাত্রা ইবি শিক্ষার্থীদের

মালয়েশিয়ায় অনৈতিক কর্মকাণ্ড, বাংলাদেশিসহ আটক ৫৬

আবাসন-হসপিটালিটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন: প্রধানমন্ত্রী

বাঁচানো গেল না আহত সেই পুলিশ সদস্যকে,মারা গেছেন ঢামেকে

গ্রামীণ অর্থনীতি ও পরিবেশ উন্নয়নে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার

বিদ্যুৎ ব্যবহার ২০ শতাংশ কমাতে ইসির ৮ নির্দেশনা

রেড ক্রিসেন্ট সদস্যদের আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান

খুলনা শিপইয়ার্ডের সাবেক এমডিসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা

মেডিকেল কলেজের মান বাড়লে আরও দক্ষ চিকিৎসক তৈরি হবে

কোটা নিয়ে মন্ত্রিসভায় আলোচনা করে সিদ্ধান্ত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

সরকারকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলো আন্দোলনকারীরা

ট্রাম্পের ওপর হামলায় উদ্বেগে-নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ

রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি জমা দিলেন আন্দোলনকারীরা

পুলিশ সেজে পণ্যবাহী গাড়িতে ডাকাতি করতো তারা

স্মারকলিপি দিতে বঙ্গভবনে কোটাবিরোধীদের প্রতিনিধি দল

আস্থা রাখুন শেখ হাসিনায়

শিক্ষার্থীরা না বুঝেই কোটা নিয়ে আন্দোলন করছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ব্যারিকেড ভেঙে বঙ্গভবনের দিকে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা

শিক্ষার্থীদের গণপদযাত্রা পুলিশি বাধার মুখে