কলেজছাত্রীকে ধ’র্ষণের পর শ্বা’সরো’ধে হ’ত্যা করল প্রে’মিক, এলাকায় তোলপাড়

0

কলেজছাত্রীকে ধ’র্ষণের পর শ্বা’সরো’ধে হ’ত্যা করল এক প্রে’মিক। নি’খোঁজের তিনদিন পর সাতক্ষীরার শ্যামনগর ‘উপজেলার একটি বিলের মধ্যে থেকে কলেজছাত্রী মরিয়ম খাতুনের (২২) ম’র’দে’হ উ’দ্ধারের ঘ’টনায় প্রে’মিক সুব্রত ম’ন্ডলকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ।

ধ’র্ষ’ণের পর কলেজছাত্রী মরিয়মকে শ্বা’সরো’ধে হ’ত্যা করেছে প্রে’মিক সুব্রত। রোববার (১২ জানুয়ারি) নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান। এর আগে শনিবার (১১ জানুয়ারি) রাতে

ভুরুলিয়া ইউনিয়নের কাচড়াহাটি গ্রামের নিজ বাড়ি থে’কে সুব্রতকে গ্রে’ফতার করা হয়। গ্রে’ফতারকৃত সুব্রত মন্ডল (২৪) ওই গ্রামের প’রিমল ম’ন্ডলের ছেলে। নি’হ’ত মরিয়ম খাতুন ভুরুলিয়া ইউনিয়নের বল্লভপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের মে’য়ে ও শ্যামনগর মহসিন ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী।

এসপি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, গত শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকালে ভুরুলিয়া ইউনিয়নের বল্লভপুর গ্রামের একটি বিলের মধ্যে থেকে গ’লায় ফাঁ’স দেয়া অবস্থায় মরিয়ম খাতুনের ম’রদে’হ উ’দ্ধার করে পু’লিশ। তিনদিন আগে এ’শার নামাজের পর বাড়ি থেকে বের হয়ে যান মরিয়ম।

তখন থেকে নি’খোঁজ ছিলেন তিনি। এ ঘটনায় শ্যামনগর থা’নায় জি’ডি করেন মরিয়মের বাবা। শুক্রবার সকালে স্থানীয়দের দেয়া খবরের ভিত্তিতে ম’রিয়মের ‘ম’রদে’হ উ’দ্ধার করে পু’লিশ। পু’লিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মরিয়মের সঙ্গে সু’ব্রতের দুই বছর ধ’রে প্রে’মের স’ম্পর্ক ছিল।

তাদের মধ্যে শা’রীরিক স’ম্পর্কও ছিল। গত দুই মাস ধরে সুব্রতকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন মরিয়ম। বিয়ে না ক’রলে সু’ব্রতের বাড়িতে উ’ঠবেন বলেও সাফ জানিয়ে দেন তিনি। এতে আ’তঙ্কগ্র’স্ত হয়ে ম’রিয়মকে হ’ত্যা’র প’রিকল্পনা ক’রেন সুব্রত।

পরিকল্পনা অনুযায়ী ৭ জানুয়ারি সন্ধ্যায় মোবাইলে ম’রিয়মকে ডে’কে বি’লের মধ্যে নিয়ে যান তিনি। সেখানে ধ’র্ষ’ণের পর গ’লায় ও’ড়না পেঁ’চিয়ে ম’রিয়মকে হ’ত্যা ক’রেন সুব্রত। তাকে গ্রে’ফতারের পর এ ঘ’টনায় মা’মলা করেন নি’হ’তের ভাই। প্রেস ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার (কালিগঞ্জ-সার্কেল) জামিরুল ইসলাম ও শ্যামনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা প্রমুখ।jagonews24

Leave A Reply

Your email address will not be published.